রবিবার ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ সকাল ৮:২৭
শিরোনামঃ
Logo প্রাচীন প্রাণায়াম নিয়মিত করার উপকারিতা Logo চট্টগ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কন্দ্রে করে হামলা, আহত ২ Logo রাজধানীর বাড্ডায় গৃহবধূ ও যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু Logo বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ-জাতীয় কবি নজরুল জন্মবার্ষিকী উদযাপিত  Logo ফতুল্লায় অজ্ঞাত এক নারীর মরদেহ উদ্ধার Logo চৌদ্দগ্রাম থানা ১২৫ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল ও ১টি কাভার্ডভ্যান গাড়ীসহ ৪ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার- Logo রূপগঞ্জে গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক ফুটবল টুর্নামেন্ট শুভ উদ্বোধন Logo র‌্যাব-১০ এর বিশেষ অভিযানে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানা এলাকা থেকে ডাকাত চক্রের মূলহোতা রাকিবসহ ১১ জনকে গ্রেফতার Logo রাজবাড়ীতে পাঁচদিন ধরে নিখোঁজ মাদরাসাছাত্র,থানায় জিডি Logo ছেলের খারাপ আচরণ সহ্য না করতে পেরে মায়ের আত্মহত্যা

স্কুটার চালাতে নারীরা বেশি স্বাছন্দ্য বোধ করেন কেন?

nagarsangbad24
  • প্রকাশিত: মে, ১৭, ২০২৩, ৯:৪৯ অপরাহ্ণ
  • ২৯১ ০৯ বার দেখা হয়েছে

       
 
  

 

 

স্কুটার চালাতে নারীরা বেশি স্বাছন্দ্য বোধ করেন কেন?

বর্তমানে নারীদের বাইক চালানো খুব স্বাভাবিক ব্যাপার। অনেকেই শখ করে কিংবা প্রয়োজনে বাইক ব্যবহার করেন। তবে নারীদের বাইকের চেয়ে স্কুটার চালাতেই বেশি দেখা যায়। অনেকেই আবার মনে করেন স্কুটার তৈরি হয়েছে নারীদের জন্য। আসলে ব্যাপারটা কিন্তু এমন নয়।

অনেকগুলো কারণেই নারীরা বাইকের চেয়ে স্কুটার চালাতে বেশি পছন্দ করেন। একাধিক সমীক্ষা থেকে জানা যায়, স্কুটারের ডিজাইন অনেক বেশি আরামদায়ক এবং হালকা ওজনের জন্য নারীরা বেশি স্বাছন্দ্য বোধ করেন স্কুটার চালাতে। খুব সহজেই নিয়ন্ত্রণ করা যায় স্কুটার, পরিসংখ্যানও বলছে বাইকের থেকে দেশে স্কুটারের বিক্রি অনেক বেশি।

এছাড়াও আরও কয়েকটি কারণ আছে নারীদের স্কুটার বেশি পছন্দ করার। চলুন জেনে নেওয়া যাক সেসব-

আকর্ষণীয় বৈশিষ্ট্য

স্কুটারের বিভিন্ন বৈশিষ্ট্যের কারণে নারীদের কাছে এটি এত প্রিয়। যেমন-বেশির ভাগ স্কুটারে বড় আন্ডার-সিট স্টোরেজ থাকে, যা জিনিস রাখার জন্য একটি আদর্শ বগি। এছাড়া এর রং এবং ডিজাইনের দিক থেকে অসাধারণ।

ওজনে হালকা

স্কুটারের ওজন বাইকের থেকে অনেক কম হয়। উদাহরণস্বরূপ টিভিএস পেপ প্লাস স্কুটারের ওজন মাত্র ৯৫ কেজি। গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স ১৩৫ মিলিমিটার (৫ ইঞ্চি) অর্থাৎ মাটি থেকে স্কুটির যে চেসিস বা ফ্রেম রয়েছে তার মধ্যে দূরত্ব। স্কুটারে সিটের উচ্চতা ৭৬৮ মিলিমিটার। ওজন ও আকৃতিতে কম হওয়ায় স্কুটার নিয়ন্ত্রণ করতে খুব একটা সমস্যার মুখে পড়তে হয় না নারীদের। ট্রাফিক সিগন্যালে সহজে যাতায়াত করা যায়। পাশাপাশি কোনো ঝক্কিঝামেলা ছাড়াই পার্ক করা যায়।

টেকনিক্যাল ঝামেলা কম
বাইকের তুলনায় স্কুটারে যন্ত্রপাতির জটিলতা খুব কম। গিয়ার পরিবর্তন করার ঝামেলা থাকে না। যেহেতু বেশিরভাগ স্কুটার কন্টিনিউসলি ভেরিয়েবেল ট্রান্সমিশন দ্বারা চলে তাই এই যন্ত্রের প্রয়োজন পড়ে না। এটি ছাড়াও অধিকাংশ স্কুটির সাসপেনশন এবং ব্রেকিং থাকে সাধারণ। স্কুটারে স্টার্ট দেওয়া মাত্রই হু হু করে বেরিয়ে পড়া যায় গন্তব্যের উদ্দেশ্যে।

ইঞ্জিনের আকার ও উচ্চ গতি

বেশিরভাগ স্কুটারের ইঞ্জিন ৫০ সিসি থেকে ২৫০ সিসি পর্যন্ত। বেশ ভালোই মাইলেজ দেয় স্কুটারগুলো। নারীদের বেশিরভাগই যেহেতু অফিসে যাতায়াত করেন স্কুটার নিয়ে তাই এই ইঞ্জিন তাদের জন্য যথেষ্ট। একটি ৫০০ সিসি স্কুটার প্রায় ৪০ এমপিএইচ গতিতে চলতে পারে।

জ্বালানি দক্ষতা

প্রতিদিনের যাতায়াতের ক্ষেত্রে স্কুটারগুলো অত্যন্ত জ্বালানি সাশ্রয়ী হয়; কিছু মডেল আছে যার গড় ১৩২ এমপিজি পর্যন্ত।

দামে কম

বর্তমানে টু হুইলার সংস্থাগুলো কম দামে আকর্ষণীয় স্টাইলের স্কুটার অফার করছে ক্রেতাদের। বাইকের মতো বেশি মূল্য হয় না এই স্কুটারের। দামের পাশাপাশি বাজারে স্কুটারের উপলব্ধতা অনেক বেশি।

এ বিভাগের আরও খবর...
© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | নগর সংবাদ
Design & Developed BY:
ThemesCell